ঘুমন্ত মা ও শিশুর ওপর অ্যাসিড নিক্ষেপের অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার

ঘুমন্ত মা ও শিশুর ওপর অ্যাসিড নিক্ষেপের অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার :

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ঘুমন্ত মা ও শিশুর ওপর অ্যাসিড নিক্ষেপের ঘটনায় অভিযুক্ত খোকনকে (৫৫) গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ান র‌্যাব-১১। বৃহস্পতিবার (৬ জুলাই) বিকেলে র‌্যাব-১১ এর উপ অধিনায়ক মো. সানরিয়া চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে, বুধবার (৫ জুলাই) দিবাগত রাতে কুমিল্লা জেলার তিতাস থানাধীন রায়পুর পুরান বাতাকান্দি এলাকা হতে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

খোকন আড়াইহাজারের গোপালদী পৌরসভার গায়েনপাড়া এলাকার মৃত আনসার আলীর ছেলে।

বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাবের এই কর্মকর্তা জানায়, গত ২৩ জুন রাত সাড়ে ৮ টায় আড়াইহাজারে ঘুমন্ত মা ও শিশুর ওপর অ্যাসিড নিক্ষেপের মত নৃশংস ঘটনা ঘটেছে। এতে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। এই ঘটনার এহাজার বিশ্লেষণ করে জানা যায়, ভুক্তভোগি মোর্শেদার (২২) প্রথম স্বামী তালাকপ্রাপ্ত হওয়ার পর তার কণ্য সন্তান মারিয়া(৬) কে নিয়ে মায়ের বাড়িতে বসবাস করতো। গত ৫ মাস পূর্বে মোর্শেদার সাথে অত্র মামলার প্রধান অভিযুক্ত খোকন (৫৫) এর সাথে বিয়ে হয়। খোকনের এটি তৃতীয় বিয়ে। বিয়ের পর থেকে শিশু মারিয়াকে তার নানির বাড়িতে রেখে আসার জন্য চাপ দিয়ে আসছিলো মোর্শেদার স্বামী। এতে রাজি না হওয়ার মোর্শেদার স্বামী তাকে প্রায় সময় নির্যাতন করতো। এর জের ধরে বিয়ের তিন মাস পর মোর্শেদাকে মারধর করে তার মায়ের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। এরপর থেকে সে মায়ের বাড়িতে বসবাস করতো। 


র‌্যাব আরও জানায়, ২৩ জুন রাতে মোর্শেদা তার সন্তানকে নিয়ে নিজ কক্ষে শুয়ে ছিল। এই অবস্থায় খোকন তার ৩-৪ জন সহযোগিকে নিয়ে স্ত্রী ও শিশু মারিয়ার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে কক্ষের খোলা জানালার পাশে সিরিঞ্জ দিয়ে মোর্শেদার ডান পায়ের উরুতে ও শিশু মারিয়ার মুখে অ্যাসিড নিক্ষেপ করে ঝলসে দেয়। এ সময় তারা পালিয়ে যায়। পরে তাদের চিৎকার শুনে তার মা ও স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে প্রথমে আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। বর্তমানে তারা সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এই ঘটনায় ভুক্তভোগির মা সাহেদা বেগম বাদী হয়ে আড়াইহাজার থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে র‌্যাব-১১ ছায়া তদন্ত শুরু করে গত ৫ জুলাই দিবাগত রাত আড়াইটায় কুমিল্লা জেলার তিতাস থানাধীন রায়পুর পুরান বাতাকান্দি এলাকা হতে আসামি খোকনকে গ্রেফতার করে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।