শটগানের গুলিতে ইউএনওর বাসভবনের আনসার সদস্য নিহত

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে শটগানের গুলিতে আফজাল হোসেন (২৫) নামে এক আনসার সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ বলছে, এই কর্মকর্তা আত্মহত্যা করেছেন।

সোমবার (২২ এপ্রিল) সন্ধ্যায় রাজধানীর ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বন্দর থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) আবু বকর সিদ্দিক। 

নিহত আফজাল চট্রগ্রাম জেলার মীরেরশরাই থানার গজারিয়া গ্রামের মৃত অহিদুর রহমানের ছেলে। তিনি বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বাসভবনের নিরাপত্তা কর্মী ছিলেন। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বিকেলে বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সরকারী বাসভবনে দায়িত্ব পালন করছিলেন আফজাল হোসেন আফজাল হোসেন। বিকেল ৪ টা ৪০ মিনিটে গুলির বিকট শব্দ শুনে আশেপাশের সবাই সেখানে ছুটে যায়। বাসভবনের গার্ড রুমের মেঝেতে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তার রক্তাক্ত দেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। শটগানের গুলি তার মাথার একটি অংশে আঘাত করেছে। পরে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে বন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে  সন্ধায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। এ ঘটনার পুলিশ তার ব্যবহৃত শর্টগান ও গুলির খোসা জব্দ করেছে।

বন্দর থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) আবু বকর সিদ্দিক বলেন, ‘আনসার সদস্য নিজে গুলি করে আত্মহত্যা করেছেন। গুলিবিদ্ধ হলে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়। এখনো লাশ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রয়েছে। 

এ বিষয়ে জানতে বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এম এ মুহাইমিন আল জিহান কে একাধিকবার ফোন করেও পাওয়া যায়নি।