রূপগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদীতে জাহাজে বিস্ফোরণ, দগ্ধ ৮

রূপগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদীতে জাহাজে বিস্ফোরণ, দগ্ধ ৮

রূপগঞ্জ প্রতিনিধি :

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে একটি জাহাজে বিস্ফোরণ ও অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৮ জন দগ্ধ হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৫ জনকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার দিবাগত রাতে মুড়াপাড়ার দড়িকান্দি এলাকায় শীতলক্ষ্যা নদীতে নোঙর করে রাখা ও টি সাংহাই ৮ জাহাজে এ ঘটনা ঘটে।

দগ্ধরা হলেন- জাহাজটির স্টাফ আব্দুল মান্নান রাহাদ (২৩), হুমায়ুন কবির (৫৪), তাজুল ইসলাম লিমন (২৪), ইমতিয়াজ আহমেদ (৪২), রুবেল (৩৮), সোহেল (৩৮), নাজমুল (৩৩) ও রাকিব (২৪)।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ইছাপুরা নৌ পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক মাহবুবুর রহমান। তিনি বলেন, শীতলক্ষ্যা নদীতে নোঙর করে রাখা ও টি সাংহাই ৮ জাহাজে হঠাৎ করে আগুন লেগে যায়। এ সময় আগুনের শিখা ২০ থেকে ৩০ ফুট উচ্চতায় উঠে। জাহাজে থাকা স্টাফরা দগ্ধ হয়। আশপাশের জাহাজের লোকজন তাদের উদ্ধার করে তাৎক্ষণিক হাসপাতালে ভর্তি করে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ‘চট্টগ্রাম থেকে নরসিংদীতে জাহাজে করে তেল নিয়ে যায়। সেখানে তেল আনলোড করে জাহাজটি নিয়ে রূপগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদীতে ডকইয়ার্ডে রাখা হয়। রাত ১টার দিকে জাহাজের ইঞ্জিন রুমে হঠাৎ বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হয়। মুহূর্তের মধ্যে জাহাজের স্টাফদের শরীরে আগুন ধরে যায়। সঙ্গে সঙ্গে তারা নদীতে লাফিয়ে পড়ে। এরপর সাঁতরে পাড়ে উঠলে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।’

বার্ন ইনস্টিটিউটের জরুরি বিভাগের আবাসিক চিকিৎসক মো. তরিকুল ইসলাম বলেন, ‘জাহাজের আগুনের ঘটনায় মোট ৮ জন রোগীকে বার্ন ইনস্টিটিউটে নিয়ে আসা হয়েছিল। এদের মধ্যে রাকিব, রাহাদ ও নাজমুলকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বাকি পাঁচজনকে ভর্তি রয়েছেন। এদের সবার অবস্থা আশঙ্কাজনক।