মনু হত্যাকান্ডের মামলায় আসামি ১৫ জন

বন্দরে মনিরুজ্জামান মনু (৪২) নামে এক যুবককে হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এতে ১৫ জনের নাম উল্লেখ সহ আরও কয়েকজনকে অজ্ঞাত করে আসামি করা হয়েছে। শনিবার (৮ জুন) রাতে নিহতের স্ত্রী সাবিনা বেগম বাদী হয়ে বন্দর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এর আগে, শুক্রবার (৭ জুন) সকালে এনসিসির ২৭নং ওয়ার্ডের মুরাদপুরে নিজ বাড়ি থেকে মনুর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। হত্যা মামলার আসামিরা হলেন, মুরাদপুর এলাকার মনির, মিঠু, টিটু, ফারুক, মোজাম্মেল, নুরু হাজী, কাউসার, নাঈম, ফরহাদ, ফয়সাল, রায়হান, নুরুল, মোজাম্মেল, ইউনুস ও জনি। 

স্বজনরা জানান, সোনারগাঁয়ের কুতুবপুর মামির জানাজা শেষে শুক্রবার বেলা ১১ টার দিকে মনিরুজ্জামান মনু বন্দরের মদনপুরের মুরাদপুর নিজ বাড়িতে আসে। এসময় একই এলাকার নুরা মিয়ার তিন ছেলে মিঠু, টিটু ও মনিরের নেতৃত্বে ১০ থেকে ১২ জনের দল মনুকে ঘর থেকে বাহির করে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করলে দুপুর ২ টার দিকে চিকিৎসাধিন অবস্থায় সে মারা যায়।

বন্দর থানা পুলিশের ওসি গোলাম মোস্তফা বলেন, মনিরুজ্জামান মনু হত্যাকান্ডের ঘটনায় নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। এতে ১৫ জনের নাম উল্লেখ করে ও কয়েকজন অজ্ঞাতনামা করে আসামি করা হয়েছে আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য আমরা অভিযান অব্যাহত রয়েছে।