ভাতিজাকে কুপিয়ে হত্যা করলো চাচা

কুপিয়ে হত্যা

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে চাচার অস্ত্রের আঘাতে ভাতিজা নুরুল হক (৪৫) মারা গেছেন। শুক্রবার ভোরে রাজধানীর একটি বেসরকারী হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

নিহত নূরুল হক উপজেলার ছনি এলাকার লতিফ মিয়ার ছেলে।

এর আগে, গত ১৬ মার্চ সেহরীর পর উপজেলার সদর ইউনিয়নের ছনি এলাকায় তার ওপর হামলা চালায় চাচা আব্দুল হাশেম। 

নিহতের স্বজন ও স্থানীয়রা জানান, গত ১৫ মার্চ বিকালে বাড়ীর পাশে বিলে জাল দিয়ে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে নুরুল হকের সাথে তার আপন চাচা আব্দুল হাশেমের কথাকাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। এর জের ধরে ১৬ মার্চ ভোরে সেহেরী খেয়ে নুরুল হক মাছ ধরতে বাড়ী থেকে বের হয়ে পাশে লাউ গাছের মাচার কাছে পৌছেলে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা চাচা আব্দুল হাশেম, তার ছেলে বাবু ও সোহাগ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তার উপর হামলা করে। একপর্যায়ে ধারালো দা দিয়ে এলোপাথারী কুপিয়ে গুরুতর জখম করে তাকে। খবর পেয়ে তার পরিবারের লোকজন তাকে প্রথমে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে একটি বেসরকারী হাসপাতালে আইসিইউতে ভর্তি করেন। এদিকে শুক্রবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় নুরুল হক।

 রূপগঞ্জ থানার ওসি দিপক চন্দ্র সাহা বলেন, হামলা ঘটনায় আগেই মামলা দায়ের করা হয়েছে। বাবু নামে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মামলাটি নিয়মিত হত্যা মামলা হিসেবে গৃহিত হবে। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।