বৃষ্টিতে ভোটার উপস্থিত কম, পোলিং এজেন্ট আটক

প্রথমধাপে অনুষ্ঠেয় নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। বুধবার (৮ মে) সকাল ৮ টা থেকে উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নের ৫৪টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। তবে ভোটার উপস্থিতি তুলনামূলক কম রয়েছে। 

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, ভোট কেন্দ্রে ভোটার সংখ্যা একেবারে কম। অনেক কেন্দ্র ভোটার শূন্য রয়েছে।

এদিকে সকালে সরকারি হাজী ইব্রাহিম আলম চান স্কুলের ভোট কেন্দ্র থেকে আরিফ নামে একজন পোলিং এজেন্ট কে আটক করা হয়েছে। তিনি চেয়ারম্যান প্রার্থী এম এ রশিদের এজেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

এ বিষয়ে কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার সাইফুল আলম বাংলা ট্রিবিউন কে বলেন, কেন্দ্রের কক্ষে মোবাইল ফোন ব্যবহারের দায়ে একজন পোলিং এজেন্ট কে আটক করা হয়েছে। সবাইকে বার বার সতর্ক করা সত্ত্বেও তিনি মোবাইল ফোন ব্যবহার করেছেন। 

তিনি আরও বলেন, এখানে ১৮৩ টি ভোট কাস্ট হয়েছে। মোট ভোটার সংখ্যা ৩ হাজার ৩৪ টি। বৃষ্টির কারণে ভোটার উপস্থিতি কম রয়েছে।

রিটার্নিং কর্মকর্তা ইস্তাফিজুল হক আকন্দ বলেন, সকাল থেকে সুষ্ঠভাবে ভোট চলছে। তবে ভোটার উপস্থিতি কম রয়েছে। আশা করছি, বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটার বাড়বে।

আরিফ নামে একজন পোলিং এজেন্টকে আটক করা হয়েছে – এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এই বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে কেউ অনিয়ম বা অপরাধ করলে তার বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৪ জন, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন এবং নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ জনসহ মোট ১০ প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এ উপজেলায় ৩৫৭ ভোট পক্ষে ১ লাখ ১৫ হাজার ৫৬৪ জন ভোটার।