বিয়ে দিতে রাজি না হওয়ায় কিশোরীকে ধর্ষণ, দুজনের যাবজ্জীবন

বিয়ে দিতে রাজি না হওয়ায় কিশোরীকে ধর্ষণ, দুজনের যাবজ্জীবন

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি :

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে এক কিশোরীকে (১৪) ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যার ঘটনায় দুজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই মামলায় অপর দুজনকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

রোববার (৪ জুন) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক নাজমুল হক শ্যামল এ রায় দেন।

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন- নারায়ণগঞ্জ বন্দরের মৃত মিন্টুর ছেলে রাসেল মিয়া (২৫) ও মহিউদ্দিনের ছেলে নেসার আলী (৫৫)।

খালাসপ্রাপ্ত দুজন হলেন- সিদ্ধিরগঞ্জের গোদনাইল এলাকার মৃত হোসেন প্রধানের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২৬) ও বন্দরের হুমায়ুন কবিরের ছেলে রাহুল (২৭)।

সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) রকিবউদ্দিন আহমেদ রাকিব রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ১৮ এপ্রিল সিদ্ধিরগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদী থেকে অজ্ঞাতপরিচয়ে এক কিশোরীর (১৪) মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে তার পরিচয় শনাক্ত করা হয়।

আদালতে দেওয়া জবানবন্দিতে কিশোরীর বাবা বলেন, তার মেয়েকে আসামি রাসেল বিয়ের কথা বলেছিলেন। কিন্তু তার কাছে বিয়ে দিতে রাজি না হওয়ায় রাসেল ও তার সহযোগীরা মিলে তার মেয়েকে ধর্ষণ করে হত্যা করেন।

কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান বলেন, আসামিদের উপস্থিতিতে আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।