বিএনপি ছেড়ে তৃণমূল বিএনপিতে ভিড়ছেন, বাড়ছে মনোনয়ন প্রত্যাশী

তৃণমূল বিএনপি
তৃণমূল বিএনপি

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ থেকে তৃণমূল বিএনপি মনোনয়ন প্রত্যাশীর সংখ্যা বাড়ছে। একে একে জেলার চারটি আসন থেকে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত নেতা সহ আরও অনেকে। আবার অনেকে বিএনপি দল ত্যাগ করে তৃণমূল বিএনপিতে ভিড় জমাচ্ছেন। 

নারায়ণগঞ্জ-১ আসনে তৃণমূল বিএনপি মহাসচিব তৈমুর আলম খন্দকার মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন। এই আসনে তার প্রতিদ্বন্দ্বী হতে যাচ্ছেন বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী। 

নারায়ণগঞ্জ-২ আসনে তৃণমূল বিএনপির মনোনয়ন ফরর্ম কিনেছেন বাংলাদেশ রিপাবলিকান পার্টির চেয়ারম্যান  কে এম আবু হানিফ হৃদয়। এই আসনে তার বিপরীতে শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বী হতে পারেন ওই আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু। 

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে তৃণমূল বিএনপি থেকে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন এড. আলী হোসেন। এই আসনে তার বিপরীতে শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হতে পারেন ওই আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা এ কে এম শামীম ওসমান। 

নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে তৃণমূল বিএনপি থেকে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন এড. আব্দুল হামিদ ভাসানী। এই আসনে তার বিপরীতে শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বী হতে পারেন ওই আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও জাপা নেতা এ কে এম সেলিম ওসমান।

প্রসঙ্গত, তৈমুর আলম খন্দকার বিগত সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে বিএনপি দল থেকে বহিষ্কৃত হন। পরে তিনি তৃণমূল বিএনপিতে যোগদান করে দলটির মহাসচিব পদ পেয়ে যান। সম্প্রতি সেই দলে ভিড় করে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন সাবেক বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট আলী হোসেন এবং অ্যাডভোকেট আব্দুল হামিদ ভাসানী। 

দলীয় সূত্র বলছে, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তফসিল ঘোষণাকে প্রত্যাখান করেছে বিএনপি দলটি। ফলে এখন পর্যন্ত নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার তেমন কোন প্রস্তুতি দেখা যাচ্ছেনা। অন্যদিকে বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত নেতা তৈমুর আলম খন্দকার তৃণমূল বিএনপি যোগদান করলে তার অনুসারীরা সেই পথে হাঁটতে শুরু করেছেন। এছাড়া জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা এই নেতার দিকে আকৃষ্ট হচ্ছেন অনেক প্রার্থী। যে কারণে তৃণমূল বিএনপিতে মনোনয়ন প্রত্যাশীর সংখ্যা বাড়ছে। ধারণ করা হচ্ছে, এ জেলার সবকটি আসন থেকে তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী দেওয়া হবে।