বাকি খাওয়াকে কেন্দ্র করে মারপিট, চা দোকানি নিহত

স্টাফ রিপোর্টার :

নারায়ণগঞ্জ সদর ব্যাপারী পাড়ায় একটি চায়ের দোকানে বাকি খাওয়া নিয়ে তর্ক বিতর্কে এক বখাটের ঘুষি ও মারপিটে মোশারফ হোসেন ফকির (৫০) নামে চা দোকানি নিহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২৪ আগস্ট) সকাল ১০টার দিকে বেপারী পাড়া মোশারফের চায়ের দোকানে ঘটনাটি ঘটে।

অভিযুক্ত বখাটের নাম কাউসার (৪০)। আহত অবস্থায় চা দোকানি মোশারফকে উদ্ধার করে প্রথমে নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে নেওয়া হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে স্বজনরা তাকে বাসায় নেওয়ার পর অবস্থার অবনতি হলে আবারও তাকে ওই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে দুপুর আড়াইটার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের মামাতো ভাই সোহাগ শেখ বলেন, ওই এলাকার কাওসার নামের এক বখাটে বিভিন্ন দোকানে চা-সিগারেট বাকি খেয়ে টাকা দেয় না। আমার ভাইয়ের দোকানেও বিভিন্ন সময় চা-সিগারেট বাকি খেয়ে টাকা দেয়নি। আজ সকাল ১০টার দিকে ভাই তার কাজে দোকান বন্ধ করার সময় কাউসার তাকে দোকান খুলে কিছু দিতে বলে। তখন ভাই জানায়, এখন চলে যাও, দোকান বন্ধ করছি। এ নিয়ে তর্ক বিতর্কের এক পর্যায়ে সে ভাইকে ঘুষি ও মারপিটে আহত করে। শেষে ঢাকা মেডিক্যালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের পুলিশ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া বলেন, মরদেহটি হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানায় অবগত করা হয়েছে

।বরিশাল উজিরপুর উপজেলার কাজিরা গ্রামের মৃত খালেক ফকিরের ছেলে মোশারফ।বর্তমানে নারায়ণগঞ্জ সদর বেপারী পাড়া পরিবারের সঙ্গে ভাড়া বাসায় থাকতেন। এক ছেলে দুই মেয়ের জনক ছিলেন তিনি।