বন্দরে পিকআপ চালককে কুপিয়ে ছিনতাইয়ের ঘটনায় গ্রেফতার-৩

বন্দর প্রতিনিধি :

নারায়ণগঞ্জের বন্দরের কেওঢালা এলাকায় টাইলস বহনের পিকআপ ভ্যান চালককে কুপিয়ে ছিনতাইয়ের ঘটনায় ৩ ছিনতাইকারিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার রাতে ফতুল্লা বলাইল পশ্চিম পোদ্দার বাজার এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে, শনিবার রাতে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়ক কেওঢালা ৯০৯ ইটভাটার সামনে টাইলস বহনকারি এক পিকআপ ভ্যান চালককে কুপিয়ে নগদ টাকা ও মোবাইল সেট ছিনিয়ে নিয়ে গেছে একটি সংঘবদ্ধ ছিনতাইকারী চক্র। 

 অভিযুক্ত তিন ছিনতাইকারীদের নাম হলো- জুয়েল(২১), হৃদয়(২৪) ও বিল্লাল(২৮)। তারা একই এলাকার ভাড়াটিয়া বাসিন্দা।

কামতাল তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর এইচ এম মাহমুদ জানান, মো. আবু বক্কর সিদ্দিক (৩৯) নামে একজন পিকআপ ভ্যান চালক গত শনিবার রাত অনুমান ৮ টার দিকে পিকআপ নিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ এলাকা থেকে ফ্রেশ কোম্পানীতে টাইলস আনতে মেঘনার উদ্দেশে রওনা দপয়। রাত অনুমান ১০ টার দিকে ঢাকা- চট্টগ্রাম মহাসড়কের বন্দর থানাধীন কেওঢালা এলাকায় ৯০৯ ইট ভাটার সামনে ময়লা স্তুপের পাশে পৌঁছালে অজ্ঞাতনামা ৩/৪ জন ছিনতাইকারি ধারালো চাকু ও চাপাতি দিয়া মাথায় কোপ দিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে নগদ ৪০,০০০/- টাকা ও একটি স্মার্ট মোবাইল ফোন Techno Spark HC যাহার মূল্য ১৪ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়া যায়। 

 এ ঘটনায় মামলা দায়ের পর তদন্তকারি অফিসার এসআই আল ইসলাম ও সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে রোববার সকালে ও সন্ধ্যা পর্যন্ত ফতুল্লা বলাইল পশ্চিম পোদ্দার বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে ঘটনার প্রধান আসামি জুয়েল (২১), তার পিতার নাম মোহাম্মদ আলী শেখ ওরফে হারুন আর রশিদ, মেদিনীপুর জেলা মুন্সীগঞ্জ। মোহাম্মদ হৃদয় (২৮) পিতামৃত মালেক শাহ এনায়েত নগর শ্যামগাও থানা ফতুল্লা জেলা নারায়ণগঞ্জ ও মো. বিল্লাল (২৪) পিতা মো. ইয়াকুব সাং ছাতক বরাক থানা সাথিয়া জেলা পাবনা। তারা পরিবার নিয়ে একই এলাকায় ভাড়ায় বসবাস করেন।