নিখোঁজের ৬ দিন পর পুকুরে মিললো মাদ্রাসা ছাত্রের লাশ 

লাশ উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে নিখোঁজের ৬ দিন পর আরাফাত মিয়া (১১) নামে এক মাদ্রাসা ছাত্রের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের ভারগাঁও কাজিপাড়া আদমপুর বাগ এলাকার একটি পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। 

এর আগে, গত ২ ডিসেম্বর বাড়ির পাশে খেলতে গিয়ে সে নিখোঁজ হয়। আরাফাত মিয়া উপজেলার ভারগাঁও কাজিপাড়া গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে। সে স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় ৪র্থ শ্রেণিতে পড়ত।

জানা যায়, উপজেলার সাদীপুর ইউনিয়নের ভারগাও কাজিপাড়া এলাকার দেলোয়ার হোসেনের ছেলে আরাফাত মিয়া (১১) স্থানীয় ভারগাঁও এলাকার একটি মাদ্রাসায় পড়াশোনা করে। গত ২ ডিসেম্বর বাড়ির পাশে খেলতে গিয়ে আর বাসায় ফেরেনি। বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে গত ৪ ডিসেম্বর সোনারগাঁ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন তার চাচা মানিক মিয়া।

নিখোঁজের ৬ দিন পর শনিবার দুপুরে বাড়ির পাশ্ববর্তী আদমপুর বাগ এলাকার স্থানীয় কাশেম মিয়ার পুকুরে একটি ভাসমান লাশ দেখতে পায় এলাকাবাসী। পরে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দিলে তালতলা তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আসাদুর রহমান ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে। এসময় তার মাথায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।
এদিকে নিহত আরাফাতের বাবা দেলোয়ার হোসেন বাদী হয়ে শনিবার বিকেলে অজ্ঞাতনামা আসামি করে সোনারগাঁও থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

সোনারগাঁও থানার পরিদর্শক তদন্ত মো. মহসিন বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্টের পর মৃত্যুর আসল রহস্য উদঘাটন হবে। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে, এটা একটি হত্যাকান্ড। এ হত্যাকান্ডে জড়িতদের সনাক্ত করে গ্রেপ্তারে কাজ করছে পুলিশ।