নারায়ণগঞ্জে অটোরিকশা চালক হত্যার দায়ে দুই জনের মৃত্যুদণ্ড

নারায়ণগঞ্জে অটোরিকশা চালক হত্যার দায়ে দুই জনের মৃত্যুদণ্ড

স্টাফ রিপোর্টার

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে অটোরিকশা চালক মামুন হত্যা মামলায় দুই আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে প্রত্যেককে এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

রবিবার (২৫ জুন) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক উম্মে সরাবন তহুরা এ রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন।

মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্তরা হলেন- বন্দর উপজেলার দক্ষিণপাড়া এলাকার মো. হাফেজ মিয়ার ছেলে মো. গাফফার ও সোনারগাঁ উপজেলার উত্তরপাড়া এলাকার মো. মাসুদ রানা ওরফে মাসুদ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক মো. আসাদুজ্জামান বলেন, সোনারগাঁয়ে সিএনজি চালক মামুন হত্যাকান্ডের মামলায় সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত দুই জনকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছেন। রায় ঘো্ষণার সময়ে আসামিরা পলাতক ছিলেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১২ সালের ৮ জুলাই রাত থেকে সিএনজি চালিত অটোরিকশা সহ চালক মো. মামুন মিয়া (১৮) নিখোঁজ হয়। পরের দিন ৯ জুলাই একটি মোবাইল নম্বর থেকে ফোন করে মামুন ও অটোরিকশাটি তাদের হেফাজতে রয়েছে উল্লেখ করে তিন লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। পরে এক লাখ ৩০ হাজার টাকা দিতে রাজি হলে মুক্তিপণের টাকা সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন পাঠানটুলী এলাকায় একটি নির্মানাধীন বাড়ীর নিচ তলায় রেখে আসতে বলে অপহরণকারীরা। এই অবস্থায় মুক্তিপণের টাকা ও অপহরণকারীদের কথা পুলিশকে জানায় ভুক্তভোগীর পরিবারের সদস্যরা। পরে অপহরণকারীদের কথা মত টাকা রেখে আসলে, ওৎ পেতে থাকা পুলিশ সদস্যরা অপহরণকারীদের তিন জনকে আটক করে। তবে অপহরণকারীদের আরও ৩-৪ জন পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে সিএনজি চালক মামুনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনায় সিএনজি চালক মামুনের মা সুফিয়া বেগম বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়ের করেন।