‘কেউ বলার সুযোগ পাবে না, যে আগের রাতেই ভোট হয়েছে’

নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর হোসেন বলেছেন, এই নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে সব নির্বাচনে ভোটের দিন ব্যালট বক্স পাঠানো হয়েছে। অন্তত এই কথা কেউ বলার সুযোগ পাবে না, যে আগের রাতেই ভোট হয়েছে। আপনারা বিনা দ্বিধায় ভোট কেন্দ্রে যাবেন, আপনার পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিবেন। স্বাধীন ভাবে ভোট দিবেন।’

মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) বিকেলে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে রিটার্নিং অফিসার ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

 নির্বাচন সুষ্ঠু হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘যেকোন সন্ত্রাসী মূলক কাজ করে নির্বাচনকে বন্ধ করা যাবে না। আমাদের লাখ লাখ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মাঠে থাকবে। আমরা আশা করি এবার ভালো ভোট উপস্থিতি হবে। এবার অনেক প্রার্থী রয়েছেন, তাদের মধ্যে ভালো প্রতিযোগীতা হবে। দু-একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা বাদ দিলে, বাংলাদেশের নির্বাচনের অবস্থা ভালো আছে। নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দর হবে এবং জাতি অত্যন্ত উৎসবের সাথে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে।’

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য করে নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘আপনারা কোন কেন্দ্রে কোন অপ্রিতিকর কিছু দেখলে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে পাঠান, ওনারা ব্যবস্থা নিবেন। সব গণমাধ্যম সবসময় সঠিক খবর দেয়, তাও না। সোশাল মিডিয়ায় যেটা হয়, বেশির ভাগ এডিটেড জিনিস থাকে। তবে, আপনাদের পাঠানো তথ্যটা আমরা তদন্ত করবো। যদি সত্য হয়, তখন দেখবেন যে ব্যবস্থা নেই কিনা।’

প্রার্থীদের প্রচার প্রারণায় বাধা দেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আইন সবার জন্য সমান। সবাই সমান ভাবে নিজ নিজ প্রচার করতে পারবেন। কেউ যাতে কাউকে কোন রকমের বাধা না দেয়। এছাড়া আমাদের র‌্যাব, পুলিশ, ম্যাজিস্ট্রেট মাঠে আছে। নির্বাচনের হাওয়া অলরেডি শুরু হয়ে গেছে। আনন্দমুখর পরিবেশেই শুরু হয়েছে। প্রার্থীরা ভোটারদের বাড়ি বাড়ি যাবে, ভোট দেওয়ার জন্য তাদের উদ্বুদ্ধ করবেন।’

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হক, জেলা পুলিশ সুপার গোলাম মোস্তফা রাসেল সহ জেলা প্রশাসন ও জেলা পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।